সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৫২ অপরাহ্ন

ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ইতালি ও ফ্রান্স, সংকটে ব্রাজিল

 নিউজ ডেস্ক : লকডাউন শিথিল হওয়ায় ঘর ছেড়ে বেরোচ্ছেন ইউরোপের বাসিন্দারা। বহু সপ্তাহ পর ফ্রান্সের বেশ কিছু সমুদ্রসৈকতে পা পড়েছে মানুষের। ব্রিটিশ সরকার অবশ্য দেশবাসীকে অনুরোধ করেছে, খুব বেশি ঘুরতে বা বেড়াতে না যেতে। আর দুই মাস পর জার্মানিতে ফুটবল মৌসুম। জানানো হয়েছে, ছয়টি ম্যাচ রুদ্ধদ্বার অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ৩ জুন থেকে ইতালিও দেশের মধ্যে বা প্রতিবেশী দেশে সফরে কড়াকড়ি কমাবে। নভেল করোনাভাইরাসে তিন লাখের বেশি মানুষের মৃত্যুর পর ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টায় ইউরোপসহ গোটা বিশ্ব।

এর মধ্যেই যুক্তরাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সংক্রমিত সাড়ে তিন হাজার জন। আর গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত দুইশর বেশি। করোনায় মৃত্যুর সংখ্যায় এখন যুক্তরাষ্ট্রের পরেই যুক্তরাজ্য। সংখ্যাটি প্রায় সাড়ে ৩৪ হাজার। আর যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা ৮৯ হাজারের কাছাকাছি। ইউরোপে সবার আগে লকডাউন শিথিল করেছিল স্পেন। কিন্তু স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেড্রো সানচেজ গতকাল জানান, তিনি পার্লামেন্টে কথা বলে দেখবেন, যদি লকডাউন আরো এক মাস বাড়ানো যায়। কিন্তু লকডাউন তুলে দেওয়ার জন্য বিক্ষোভ চলছেই। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা এ খবর জানিয়েছে।

লকডাউনের বিরোধিতা করে বিক্ষোভ চলছে জার্মানিতেও। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে জার্মানিতে করোনার সংক্রমণে মৃত্যু সবচেয়ে কম। বেশ কিছু এলাকায় তাই লকডাউন শিথিল করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল কিছু কড়াকড়ি বজায় রেখেছেন। তাতে নাখোশ দেশবাসীর একাংশ। দুই সপ্তাহ ধরে শনি ও রোববার রাস্তায় নেমে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ করছে লোকজন। বিক্ষোভকারীরা সামাজিক দূরত্ববিধিও মানছেন না। মাস্ক পরতে দেখা যায়নি অনেককেই। হাঙ্গেরিতেও ধীরে ধীরে লকডাউন তুলে দেওয়া হচ্ছে। আগামীকাল সোমবার থেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরবে বুদাপেস্ট। তার দুই সপ্তাহ পরে গোটা দেশেই তুলে দেওয়া হবে লকডাউন।

অন্যদিকে সৌদি আরবে আবার নতুন করে করোনা সংক্রমণের ঝড় উঠেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছে দুই হাজার ৮৪০ জন। এর ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়াল। রাশিয়ার পরিস্থিতি একই। একদিনে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছে ৯ হাজার ২০০ জন। দেশটিতে করোনায় মোট আক্রান্ত প্রায় তিন লাখ।

ব্রাজিল গত শুক্রবার ঘোষণা করেছিল, সে দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ১৪ হাজার ছাড়িয়েছে। এর পরের ২৪ ঘণ্টায় আরো হাজার জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে করোনায় সংক্রমিত দুই লাখ ২৩ হাজার। গতকাল শনিবার হঠাৎই হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজে পদত্যাগ করার ঘোষণা দেন ব্রাজিলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী নেলসন টেক। এক মাসও হয়নি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিয়েছিলেন নেলসন। তাঁর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছিলেন লুইজ ম্যানডেট্টা। প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো তাঁকে বরখাস্ত করেন দায়িত্বে গাফিলতির অভিযোগে। পরপর দুজন স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে হারিয়ে মহামারি পরিস্থিতিতে আরো বিপাকেই পড়েছে ব্রাজিল।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি