রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১০:৪৪ পূর্বাহ্ন

ঠাকুরগাঁওয়ে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থদের মুখে হাসিঁ ফোটালেন আ.লীগ নেতা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : চীনের উহান থেকে বিশ্বের প্রতিটি কোণায় ছড়িয়ে পড়া বৈশ্বিক মহামারীতে পরিনত হওয়া করোনাভাইরাসে বিপর্যস্থ মানব সভ্যতা। এরই মধ্যে কালবৈশাখি ঝড় তান্ডব চালিয়েছে। ঝড়ের আগ্রাসনে ঘরবাড়ি ধ্বংস, ফসল নষ্ট হয়ে গিয়েছে এলাকার অসহায় সাধারণ মানুষের। ক্ষতিগ্রস্থদের চোখের পানিতে স্লান হয়েছে ঈদের আনন্দ।

তবে অসহায় এসব মানুষদের মাঝে জরুরী খাদ্য, স্বাস্থ্য ও নগদ অর্থ সহায়তা দিয়ে ভালোবাসার উষ্ণতা ছড়িয়েছেন ও মানবতার উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম সুজন। ক্ষতিগ্রস্থ সকল শ্রেণি পেশার মানুষের সুবিধার জন্য চালু করেছেন হটলাইন নাম্বার।

হটলাইনে শুধুমাত্র একটি ফোনকলে পৌঁছে দিচ্ছে জরুরি খাদ্য সহায়তা। ব্যক্তিগত অর্থায়নে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ৮ ইউনিয়ন, হরিপুর উপজেলার ৬ ইউনিয়ন এবং রাণীশংকৈল উপজেলার ২ ইউনিয়নসহ মোট ১৬টি ইউনিয়নের অসহায়, দরিদ্র, প্রতিবন্ধীসহ করোনা দূর্যোগে কর্মহীন হয়ে পড়া বিভিন্ন শ্রেণি পেশার প্রায় নয় হাজার মানুষের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছেন। এবং ঈদে নয় হাজার পরিবারকে কাপড়, সেমাই, চিনি, দুধ, মাংস, চাল, ডালসহ প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী বিতরন করেন ।

করোনা শুরু থেকে এ পর্যন্ত অসহায় ও দুস্থ পরিবারগুলোকে সুজনের পক্ষ থেকে ৪ বার সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। ঈদে সুজন তার এলাকার দুস্থ পরিবারগুলোর মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করেছেন তাদের সাথে। এ পর্যন্ত প্রায় ২ কোটি টাকার সহায়তা প্রদান করেছেন তার এলাকার অসহায় মানুষের মাঝে।

ঠাকুরগাঁওয়ের সীমান্তবর্তী উপজেলা বালিয়াডাঙ্গীতে বেশ কিছু চা-বাগান রয়েছে আর এসব চা-বাগানে শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন প্রায় তিন হাজার মানুষ। করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে খেয়ে না খেয়ে দিনানিপাত করছে এসব শ্রমিক। অসহায় এসব শ্রমিকের প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ প্রদান করেন সুজন।

অসুস্থ বৃদ্ধ ও গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য মমি হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনেস্টিক সেন্টার নামে একটি বেসরকারি হাসপাতাল গড়ে তুলেছেন। যেখানে ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্পে ফ্রি চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন কয়েক হাজার পরিবার।

হাসেম আলী নামের উপকারভোগী একজন জানান, এমন বিপদের সময় খাদ্য সহায়তা পেয়ে বেচেঁ আছি। এই ধরনের নেতা থাকলে দেশ আরো এগিয়ে যাবে।

সুমি আক্তার নামের একজন গর্ভবতী মহিলা বলেন, সবকিছু বন্ধ থাকায় ডাক্তারের কাছে যেতে পারছি না কিন্তু বাড়ীর কাছে ফ্রিতে চেক আপ করিয়েছি। এভাবে খুশিতে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে ধন্যবাদ জানিয়েছেন উপকারভোগী আরও অনেক মানুষ।

ব্যতিক্রমী এসব জনকল্যাণমূলক কাজের ব্যপারে মাজহারুল ইসলাম সুজন বলেন, মানবসেবাই হলো বড় ধর্ম। একজন সাধারণ মানুষ কিংবা রাজনৈতিক ব্যক্তি হিসেবে এলাকার সাধারণ মানুষের খোঁজ-খবর নেওয়া আমার নৈতিক দায়িত্ব। এমন দূর্যোগকালীন সময়ে তাদের বাড়ী বাড়ী গিয়ে খোঁজ-খবর নেওয়াসহ তাদের খাদ্যসামগ্রী প্রদান করাও আমাদের কর্তব্য।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি