সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৪:২৯ অপরাহ্ন

মায়ের কবরে চিরনিদ্রায় সাহারা খাতুন

নিউজ ডেস্ক : মায়ের কবরে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন। শনিবার সকাল ১১টায় ঢাকার বনানী কবরস্থান মসজিদে জানাজার পর সাহারা খাতুনকে দাফন করা হয়।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, সাহারা খাতুনকে হারিয়ে আওয়ামী লীগ এবং দেশের অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। দেশের মানুষ, আওয়ামী লীগ হারিয়েছে দেশপ্রেমিক, সততার উজ্জল দৃষ্টান্ত।

বনানীতে জানাজা শেষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে তাকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

এরপর একে একে শ্রদ্ধা জানান-জাতীয় সংসদের স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র।

আওয়ামী লীগ, ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ আওয়ামী লীগ, আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন ছাত্রলীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিক লীগসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে সাহারা খাতুনকে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় রাতে ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সাহারা খাতুন। গত সোমবার থেকে ওই হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি।

জ্বর ও অ্যালার্জি সমস্যাসহ বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় অসুস্থ হয়ে গত ২ জুন রাজধানী ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। কিডনি ও শ্বাসতন্ত্রের জটিলতাও ছিল তার। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ১৯ জুন তাকে প্রথম দফায় আইসিইউতে নেওয়া হয়েছিল।

অবস্থার উন্নতি হলে ২২ জুন তাকে আইসিইউ থেকে হাই ডিপেন্ডেন্সি ইউনিটে (এইচডিইউ) স্থানান্তর করা হয়। ২৬ জুন সকালে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে আবারও আইসিইউতে নেওয়া হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে গত সোমবার থাইল্যান্ডে নেওয়া হয় তাকে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাহারা খাতুন ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন। ২০০৯ সালের আওয়ামী লীগ সরকারে তিন বছরের বেশি সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন তিনি। পরে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি