বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৯:২৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

রপ্তানি শিল্পের জুলাই মাসের বেতনও ঋণের টাকায়

নিউজ ডেস্ক : রপ্তানিমুখী শিল্পের শ্রমিক ও কর্মচারিদের শেষবারের মতো জুলাই মাসের বেতনও দেওয়া যাবে কম সুদের ঋণের টাকায়। আগে যেসব শিল্প কারখানা ঋণ নিয়েছে শুধু তারাই এ তহবিল থেকে ঋণ পাবে। এ জন্য নতুন করে তিন হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। আর সুদহার বাড়িয়ে করা হয়েছে সাড়ে ৪ শতাংশ।

বাংলাদেশ ব্যাংক বৃহস্পতিবার ৪৭টি ব্যাংকে চিঠি দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে। চিঠির বিষয়টি সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোকে অবহিত করতে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের চিঠিতে বলা হয়েছে, রপ্তানিমুখী শিল্পের শ্রমিক কর্মচারিদের এপ্রিল ও মে মাসের বেতন সরকার ঘোষিত ৫ হাজার কোটি টাকার তহবিল থেকে বিতরণ করা হয়েছে। পরবর্তীতে শিল্প ও সেবা খাতের জন্য ঘোষিত ৩০ হাজার কোটি টাকা থেকে জুন মাসের বেতন দেওয়া হয়। শেষবারের মতো চলতি জুলাই মাসের বেতন দিতে এই তহবিল থেকে ঋণ পাবেন রপ্তানিকারকেরা। এ জন্য প্রণোদনা প্যাকেজে অতিরিক্ত ৩ হাজার কোটি টাকা যোগ করে ৩৩ হাজার কোটি টাকা করা হয়েছে। যেসব উদ্যোক্তা গত জুনের বেতন এ তহবিল থেকে ঋণ নিয়েছেন আবেদন সাপেক্ষে শুধু তারা ঋণ পাবেন। প্রথম তিন মাস ঋণের জন্য এককালীন ২ শতাংশ সার্ভিস চার্জ দিতে হয়েছিল। তবে এবার বার্ষিক সাড়ে ৪ শতাংশ সুদে অর্থ পাবেন তারা। যদিও ব্যাংক এক্ষেত্রে ৯ শতাংশ সুদ পাবে। বাকি সাড়ে ৪ শতাংশ ভর্তুকী দেবে সরকার।

শ্রমিক কর্মচারিদের বেতনের জন্য গঠিত তহবিল থেকে ঋণের বড় অংশই নিয়েছেন তৈরি পোশাক খাতের উদ্যোক্তারা। গত ২২ জুন পোশাকশিল্পের মালিকদের দুই সংগঠন বিজিএমইএ ও বিকেএমইএর সভাপতি নতুন করে জুলাই, আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসের বেতন পরিশোধের জন্য সহজ শর্তে ঋণ চেয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালকে চিঠি দেন। যদিও বাংলাদেশ ব্যাংকের চিঠিতে শেষবারের মতো জুলাই মাসের বেতনের কথাটি কয়েকবার উল্লেখ করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি