মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০১:২৪ পূর্বাহ্ন

সানবার্ন থেকে রেহাই পেতে

শীত যাই যাই করছে। আর রোদের তেজও বাড়ছে। এই সময়ে সবচেয়ে কমন সমস্যা সানবার্ন। অর্থাৎ রোদে পুড়ে ত্বক কালো হয়ে যাওয়া। তাই এর প্রতিকার কী হতে পারে তা জানালেন বিউটি ব্লগার নাহিন ইসলাম-

১. ত্বকের বিভিন্ন দাগছোপ দূর করতে যেমন লেবু কার্যকর, তেমনই সানবার্ন প্রতিকার করতে লেবু অব্যর্থ। লেবুতে থাকা অ্যাসিড ত্বক উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে। লেবু স্লাইস করে কেটে রোদে পোড়া অংশের ওপর আলতো করে ঘষুন। কয়েক মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিন একবার করুন।

২. স্পর্শকাতর ত্বকে সরাসরি লেবুর রস ব্যবহার করতে না চাইলে সঙ্গে মিশিয়ে নিতে পারেন আলুর রস। আলুর রসও ত্বক পরিষ্কার এবং উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।

এতে রয়েছে ফাইবার, ভিটামিন এবং মিনারেল, যা ত্বক ভালো রাখবে। পাশাপাশি এই রসের ব্লিচিং প্রপার্টিও রয়েছে যা ট্যান সরিয়ে ত্বক ফরসা করতে সাহায্য করবে। মাঝারি আকারের আলু কুচিয়ে রস বের করে এতে এক টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে রোদে পোড়া অংশে লাগান। আধাঘণ্টা রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৩. সানবার্ন কমাতে বেসন খুব কার্যকর। দুই টেবিল চামচ বেসন, এক চিমটি হলুদ গুঁড়ো, এক টেবিল চামচ গোলাপজল এবং এক টেবিল চামচ দুধ একসঙ্গে মিশিয়ে ত্বকের রোদে পোড়া অংশে লাগান। ২০ মিনিট রাখুন। এরপর শুকিয়ে যাওয়া প্যাকের ওপর কয়েক ফোঁটা পানি দিয়ে আলতো হাতে ম্যাসাজ করুন। এতে ত্বকের ওপরে জমে থাকা মৃত কোষ এবং সানবার্ন দুই-ই দূর হবে। একদিন পর পর এই প্যাক ব্যবহার করতে পারেন।

৪. টমেটোর রসও ট্যান পড়া ত্বকের জন্য খুব ভালো। এক টেবিল চামচ মসুর ডাল বাটা, এক টেবিল চামচ টমেটোর রস এবং এক চা-চামচ অ্যালোভেরা জেল একসঙ্গে মিশিয়ে রোদে পোড়া অংশের ওপর লাগান। আধাঘণ্টা রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৫. রোদে পোড়া ত্বকের জন্য খুব ভালো টকদই। রোদ থেকে ঘুরে এসে যদি টকদই মুখে ম্যাসাজ করতে পারেন, তাহলে সানবার্ন ত্বকে দীর্ঘস্থায়ী হবে না। তবে পুরোনো হয়, সে ক্ষেত্রে টকদইয়ের সঙ্গে মিশিয়ে নিন কমলার রস। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ এই রস সানবার্ন কমাতে সাহায্য করবে। সপ্তাহে দুবার এই প্যাক ব্যবহার করতে পারেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি