বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:১৫ পূর্বাহ্ন

বরিশাল- ঢাকা পারাবত (১১) যাত্রীবাহি লঞ্চের কেবিন থেকে মহিলা যাত্রীর লাশ উদ্ধার

বরিশাল প্রতিনিধি : ঢাকা-বরিশাল নৌ-পথের বিলাশবহুল যাত্রীবাহি ডাবল ডেকার পারাবত-১১ লঞ্চের ৩৯১ সিঙ্গেল কেবিনের দরজা খোলা অবস্থা থেকে এক অজ্ঞাতনামা মহিলা যাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে নৌ,মেট্রোপলিটন কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ।

আজ সোমবার (১৪ই) সেপ্টেম্বর বরিশাল নৌ-বন্দর পল্টুনে বাদিং করা লঞ্চ থেকে উদ্ধার করা হয়।

লঞ্চের কেবিন বয়, সুপারভাইজার, সিআইডি,নৌ-পুলিশ সহ কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ মূত্রে জানা গেছে, রোববার ঢাকার সদরঘাট এলাকা থেকে উক্ত মহিলা যাত্রী পারাবত-১১ লঞ্চের ৩৯১ কক্ষের যাত্রী ছিলেন।

এর পূর্বে উক্ত সিঙ্গেল কক্ষটি জনৈক কামরুল নামের এক ব্যাক্তি বুকিং দেন। যার মোবাইল নং ০১৭১১০২৫০৯২। এছাড়া ওই মহিলার আর কোন পরিচয় এখন পর্যন্ত পায়নি পুলিশ প্রশাসন।

এদিকে রোববার তৃতীয় তলার লঞ্চের দায়ীত্বরত কেবিন বয় বায়জিদ পুলিশকে জানায় রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত উক্ত কক্ষে কাউকেই তারা আসতে দেখেন নাই।

সকালে লঞ্চ বরিশাল ঘাটে নঙ্গর করার পর একেক করে সকল কেবিন ও ডেকের যাত্রীরা নেমে যাওয়ার পর পুনরায় কেবিনে কোন যাত্রী অবস্থান করছে কিনা সে বিষয়ে খোঁজ নিতে গেলে ৩৯১ কক্ষের যাত্রীর কোন প্রকার সাড়াশব্দ না পেয়ে কেবিন বয় বায়জিদ বিষয়টি লঞ্চ সুপারভাইজার নজরুলকে অবহিত করে সে এসে একই অবস্থা দেখে নৌ-বন্দর থানা পুলিশকে সংবাদটি জানায় নৌ-বন্দর থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল­াহ-আল মামুন সহ নৌ পুলিশের সদস্যরা এসে দরজা টান দিতে খুলে যায়।

পরবর্তীতে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশকে জানানো হলে লঞ্চে ছুটে আসেন, সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) মোঃ রাসেল,ওসি নুরুল ইসলাম, ওসি তদন্ত আব্দুর রহমান মুকুল, ওসি আপরেশন মোজাম্মেল হক সহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে আসেন।

একই সময়ে ছুটে আসেন ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি) পুলিশ তারাও কেবিনের বিভিন্নদিক বিভিন্নভাবে তদন্ত ও পর্যবেক্ষন করে।

এক প্রর্যায়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর তিন দপ্তরের সদস্য যে যার মত করে সিসি ক্যামেরা থেকে শুরু করে মৃত্যুর রহস্যের সন্ধান চালায়।

সিআইডি পুলিশ পরিদর্শক আল-মামুন ইসলাম জানায় লাশের গলায় একটি কালো দাগের একটি চিহ্ন তারা দেখতে পায়। প্রাথমিক পর্যায়ে ধারনা করা হচ্ছে যৌন সম্পর্কের পর তাকে হত্যা করা হয়েছে।

অপরদিকে এসি রাসেল জানায়, ধারনা করা হচ্ছে মহিলাকে হত্যা করা হয়েছে। তবে ময়না তদন্ত ছাড়া আগে কিছুই বলা যাচ্ছে না।

তবে এব্যাপারে বরিশাল নৌ-বন্দর থানা পুলিশ বাদী হয়ে কোতয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করবেন বলে ওসি আব্দুল­াহ আল মামুন জানায়।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত লঞ্চের কেবিন থেকে উক্ত মহিলার লাশ উদ্ধার করেননি তদন্ত চলার কারনে।

এসি রাসেল আরো বলেন এখানকার ত ন্তের কাজ শেষ হলে লাশ উদ্ধার করে শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি