বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৫৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে হারিয়ে শুভ সূচনায় ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস

নিউজ ডেস্ক : আইপিএলের ১৩তম সংস্করণের ১ম ম্যাচেই রোহিত শর্মার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে হারিয়ে শুভ সূচনা করেছে ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। উদ্বোধনী ম্যাচের শুরুতেই টস জয়ে শুরু ধোনির। তবে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন তিনি। আবু ধাবিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ভালো সূচনা পায় মুম্বাই। রোহিত শর্মা ও কুইন্টন ডি ককের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৪৬ রান। ১২ রান সংগ্রহ করে চাওলার শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন রোহিত শর্মা।

পরের ওভারেই আউট হন আরেক ওপেনার ডি ককও। তার সংগ্রহ ৩৩ রান। এরপর সুর্যকুমার যাদব ও সৌরভ তিওয়ারির ব্যাটিংয়ে কিছুটা ধীরগতি থাকায় খেই হারিয়ে ফেলে মুম্বাই। ১৬ বলে ১৭ রান করেন যাদব। ৩১ বলে ৪২ রান করেন তিওয়ারি। হার্দিক পান্ডিয়া, পোলার্ডরা বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। ফলে নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৬২ রান তুলতে সক্ষম হয় মুম্বাই।

আবু ধাবিতে শনিবার আইপিএলের সফলতম দুই দলের লড়াইয়ে ৫ উইকেটে জিতেছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। ১৬৩ রানের লক্ষ্য তারা ছুঁয়ে ফেলে ৪ বল বাকি থাকতে। গত আসরে ফাইনালসহ চার ম্যাচে মুম্বাইয়ের বিপক্ষে হেরেছিল চেন্নাই।

প্রথম বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে সুর বেঁধে দেন রোহিত। ব্যাটসম্যানদের ওপর চড়াও হয়ে রানের গতি বাড়ান কুইন্টন ডি কক। কিন্তু পরপর দুই ওভারে বিস্ফোরক দুই ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে বসে মুম্বাই।

জ্বলে উঠতে পারেনি মিডল অর্ডার। রোহিতের মতো ঝড়ের আভাস দিয়েই থেমে যান হার্দিক পান্ডিয়া ও কাইরন পোলার্ড। সৌরভ তিওয়ারি দলকে রেখেছিলেন বড় সংগ্রহের পথেই। কিন্তু শেষ ৬ ওভারে মাত্র ৪১ রান তুলতে ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলা মুম্বাই থেমে যায় ১৬২ রানে।

রান তাড়ায় ৬ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে হারিয়ে ফেলে চেন্নাই। রায়ডু ও দু প্লেসির ব্যাটে শুরুর ধাক্কা সামাল দিয়ে এগিয়ে যায় দলটি।

রায়ডু ছিলেন আক্রমণাত্মক। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে তাকে সঙ্গ দেন দু প্লেসি। তাদের ১১৫ রানের জুটিতে দৃঢ় ভিত পায় চেন্নাই। ক্রুনাল পান্ডিয়াকে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে থামেন রায়ডু। ৪৬ বলে খেলা তার ৭১ রানের ইনিংসে ছয় চারের পাশে তিনটি ছক্কা।

রবীন্দ্র জাদেজার ৫ বলে ১০ রানের পর স্যাম কারানের ৬ বলে ১৮ রানের ক্যামিও ইনিংসে ম্যাচ পুরোপুরি ঘুরে যায় চেন্নাইয়ের দিকে। বল হাতেও অবদান রাখায় ম্যাচ সেরার পুরস্কারও জেতেন ইংলিশ অলরাউন্ডার কারান।

গত বিশ্বকাপের পর প্রথম মাঠে নেমে গোল্ডেন ডাকের তেতো স্বাদ পেতে বসেছিলেন ধোনি। খরুচে বোলিং করা জাসপ্রিত বুমরাহর বলে আম্পায়ার কট বিহাইন্ড দিলে বাঁচেন রিভিউ নিয়ে। এই জয়ের পথে দারুণ এক কীর্তিও গড়েছেন ধোনি, চেন্নাইয়ের অধিনায়ক হিসেবে এটি তার শততম জয়। তবে ৪৪ বলে ৫৮ রান করে অপরাজিত থেকে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন ডু প্লেসি।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি