রবিবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

হাতীবান্ধায় পূজামন্ডপ থেকে সন্দেহভাজন নারী আটক

হাতীবান্ধা (লালমনিরহাট) প্রতিনিধি :: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বাবুপাড়া রাধা গোবিন্দ মন্দিরে পূজা চলাকালীন সময়ে আলেয়া বেগম (৪০) নামের এক বোরকাপড়া মহিলা মন্ডপের ভিতরে ঢুকে প্রতিমাকে ভক্তি প্রদর্শন করে।

এতে ভক্তবৃন্দের মধ্যে আতংক সৃষ্টি হয় এবং আনসার সদস্যদের হাতে বোরকা পরিহিত মহিলা আটক।

জানাগেছে,উপজেলার নওদাবাস ইউনিয়নের বাবুপাড়া রাধা গোবিন্দ মন্দিরে শনিবার রাত ৮টায় হঠাৎ একজন বোরকাপড়া মহিলা মন্ডপে প্রবেশ করে প্রতিমাকে ভক্তি দেওয়া শুরু করে। তখন উপস্থিত ভক্তবৃন্দের মধ্যে আতংক সৃষ্টি হয় যে, এই মহিলা প্রতিমা ভাঙ্গতে পারে।

তখন পূজা কমিটি ইউনিয়নের দায়িত্ব থাকা আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্যাট্রোল টিম (১৯) এর পিসি কে মোবাইলে জানালে তৎক্ষনিক টহল টিম উপস্থিত হয়ে উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা কে অবহিত করে। আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে টিম -১৯ এর পিসি সহ মন্ডপে অবস্থানরত সেচ্ছাসেবি মহিলার সাহায্যে উক্ত মহিলাটিকে হাতীবান্ধা থানায় হস্তান্তর করেন।

অভিযুক্ত বোরকাপড়া মহিলা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড পশ্চিম বেজগ্রাম এলাকার হারুন এর স্ত্রী আলেয়া বেগম বলে জানাগেছে। আলেয়া বেগম বলেন, আমার মানত ছিল তাই আমি সেখানে মোমবাতি জ্বালিয়ে প্রতিমাকে ভক্তি দেওয়ার জন্য গিয়েছিলাম। পূজা মন্ডপের সভাপতি প্রদিপ কুমার বর্মন বলেন, বোরকাপড়া মহিলাটি মন্ডপে প্রবেশ করলে আমাদের মধ্যে আতংক ও সন্দেহ সৃষ্টি হয় যে, এই মহিলা প্রতিমা ভাঙ্গতে পারে।

হাতীবান্ধা উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে টিম -১৯ এর পিসি সহ মন্ডপে অবস্থানরত সেচ্ছাসেবি মহিলার সাহায্যে উক্ত বোরকাপড়া মহিলাটিকে হাতীবান্ধা থানায় হস্তান্তর করেছি।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানা অফিসার ইনচার্জ এরশাদুল আলম সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শুনেছি মহিলা মাজার ও তরিকা ভক্ত। অত্র ইউনিয়নের ইউপি সদস্য বজলুর রহমানের জিম্বায় উক্ত মহিলা কে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি